ডিআইজি মিজানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা     শিক্ষা সেবা সহজ করতে পদ্ধতিগত পরিবর্তন আনা হবে : শিক্ষামন্ত্রী     বিদেশে ১৩টি মিশনে নিজস্ব চ্যানসারী ভবন রয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী     বাজেটের ১৪.২১ শতাংশ সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য বরাদ্দ : পরিকল্পনামন্ত্রী     বিদেশে ১৩টি মিশনে নিজস্ব চ্যানসারী ভবন রয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী     এ বছর সীমান্তে ৭২৮,৭৫,৪২,৪৩৫ টাকা মূল্যের চোরালানী পণ্য আটক হয়েছে : স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী     আফগানদের ২৬৩ রানের চ্যালেঞ্জ দিল টাইগাররা     সরকারি কর্মকর্তাদের পদোন্নতির বিষয়ে টিআইবি’র প্রতিবেদন মন্ত্রিসভায় প্রত্যাখ্যান    

মিয়ানমার কথা দিয়ে কথা রাখছে না, ডাহা মিথ্যা বলছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  জুন ১২, ২০১৯     ৪৭     ১২:৪৯ অপরাহ্ণ     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : রোহিঙ্গা ইস্যুকে প্রধান্য দিয়ে সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কূটনীতিকদের ব্রিফ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। বুধবার বেলা ১১টার দিকে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় তিনি এ ব্রিফ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘সাম্প্রতিকালে মিয়ানমারের মন্ত্রী বলেছেন- বাংলাদেশ থেকে যে সব রোহিঙ্গা যাচ্ছে না এর জন্য বাংলাদেশ দায়ী। বাংলাদেশ কোনো ধরণের কো-অপারেশন করছে না। তার এ বক্তব্য সঠিক নয়। বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে সব সময় প্রস্তুত। কিন্তু মিয়ানমার বার বার কথা দিয়ে কথা রাখছে না। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার কথা ছিল মিয়ানমারের। কিন্তু তাদের অসহযোগিতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। রোহিঙ্গাদের কারণে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে বিভিন্ন রকম অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘৬ মাস আগে যখন মিয়ানমারের জয়েন্ট কমিশনের সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয় তখন তারা বলেছিল রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে তারা কাজ করছে। তারা বার বার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন রোহিঙ্গাদের নিয়ে যাবেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও ফেরত যায়নি। এমনকি মিয়ানমারের নো-ম্যান্সল্যান্ডে যারা আছেন তারাও ফেরত যায়নি।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রতিবেশী দেশের বিরুদ্ধে কিছু বলতে চাই না। কারণ তারা আমাদের বন্ধু। কিন্তু তারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে মিথ্যা বলছে। এমন ডাহা মিথ্যা আমরা কেমন করে হজম করবো। আবার তাদের অনুরোধ করবো রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার জন্য। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে তাদের বন্ধুপ্রতীম দেশগুলো প্রতিও অনুরোধ জানাবো।’

আজকের আলোচনা কি সিদ্ধান্ত আসলো-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, ‘আমরা আমাদের অবস্থান সবাইকে জানিয়েছি। তারা একবাক্যে আমাদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। মিয়ানমার বিভিন্ন লোক বা সংস্থা দিয়ে যে সব রিপোর্ট তৈরি করছে তা ডাহা মিথ্যা।’

উত্তরণবার্তা/এআর
 



গ্রিল স্বাদে মুখরোচক চিকেন

  জুন ১৭, ২০১৯     ৩৬১

শীর্ষে ‘স্লো মোশন’

  জুন ১৫, ২০১৯     ৩৪২

পুরনো খবর