সন্ধ্যায় বিশেষ বিমানে পাকিস্তান যাচ্ছেন মাহমুদুল্লাহরা     সিটি নির্বাচনে লেমিনেটিং করা পোস্টার লাগানোর ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা     শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস     ফের হাসপাতালে সম্রাট     চীনের করোনা ভাইরাস আতঙ্ক: সতর্ক রাশিয়া     দক্ষিণ এশিয়ায় আমরাই প্রথম ই-পাসপোর্ট শুরু করলাম: প্রধানমন্ত্রী     পরপর চারজন সংসদ সদস্যের মৃত্যু অত্যন্ত কষ্টের : প্রধানমন্ত্রী     মুজিববর্ষের লোগো ব্যবহারের বিশেষ নির্দেশনা    

‘মার্কিন ড্রোনে হামলা চালিয়েছে ইরান’

  জুন ১৫, ২০১৯     ৯৯     ২:০৪ অপরাহ্ণ     বিদেশ
--

উত্তরণবার্তা আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ওমান উপসাগরে দুটি ট্যাংকারে বিস্ফোরণের কয়েক ঘন্টা আগে একটি মার্কিন ড্রোন লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছিল ইরান। এক মার্কিন কর্মকর্তা সিএনএনকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, ক্ষেপণাস্ত্রটি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারে নি এবং এটি পানিতে পড়ে যায়।

তিনি আরো জানান, আমেরিকান এমকিউ-৯ ড্রোনটি হামলার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত ট্যাংকারের কাছাকাছি ইরানি নৌযানের গোপনে ভেড়ার দৃশ্যটি ধারণ করছিল। অবশ্য ট্যাংকার দুটিতে ‘হামলা’র দৃশ্য ড্রোনটি রেকর্ড করতে পেরেছিল কিনা ওই কর্মকর্তা জানান নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ট্যাংকারে হামলার কয়েক দিন আগে লোহিত সাগরে আরেকটি মার্কিন ড্রোনে হামলা চালিয়ে ধ্বংস করা হয়েছিল। ধারণা করা হচ্ছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে এই হামলা চালিয়েছিল।

বৃহস্পতিবার ওমান উপসাগরে দুটি ট্যাংকারে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এর একটি ছিল রাসায়নিকবাহী জাপানের মালিকানাধীন কোকুকা কোরাজাস। অপরটি নরওয়ের মালিকানাধীন ফ্রন্ট আলটেয়ার। বিস্ফোরণের পরপর দুটি ট্যাংকার থেকে ক্রুদের উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, ইরানই এই হামলা চালিয়েছে। এর সমর্থনে শুক্রবার মার্কিন সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে আকাশ থেকে ধারণা করা একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করা হয়। এতে দেখা যায়, মান উপসাগরে রাসায়নিকবাহী জাপানি ট্যাংকার থেকে একটি সামরিক নৌযান গোপনে অবিস্ফোরিত মাইন অপসারণ করছে। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, এই নৌযানটি ছিল ইরানের বিপ্লবী বাহিনীর।

তেহরান অবশ্য এ দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে। জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের মিশনের মুখপাত্র আলিরেজা মিরইউসেফি এক টুইটে বলেছেন, ‘ইরান দৃঢ়ভাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভিত্তিহীন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করছে।’

এদিকে শুক্রবার ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প ইরানের দাবিকে নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি সাফ জানিয়েছেন, ইরানই ট্যাংকারে হামলা চালিয়েছে।

ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমার ধারণা একটি মাইন বিস্ফোরিত হয়নি এবং সম্ভবত এর ওপর ইরানের নাম লেখা ছিল। আপনারা দেখেছেন রাতে নৌযানটি মাইনটি খুলে নেয়ার চেষ্টা করেছে এবং এটি সরিয়ে নিতে সফল হয় যা ফাঁস হয়ে যায়।’

উত্তরণবার্তা/এআর
 



ফের হাসপাতালে সম্রাট

  জানুয়ারি ২২, ২০২০

খাবার থেকেও পেতে পারি উষ্ণতা

  জানুয়ারী ২২, ২০২০     ২৩

কুড়িগ্রামে ফের শৈত্যপ্রবাহ

  জানুয়ারী ২২, ২০২০     ২০

পুরনো খবর