বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের বৈঠক     আমাদের কাছে বাংলাদেশ সবার আগে : ভারতীয় হাইকমিশনার     মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান ছিল, সম্পর্কে যেন আতঙ্ক না আসে     আদালতের ভেতরে যে ঔদ্ধত্য দেখিয়েছেন সেটা ক্ষমার অযোগ্য : ওবায়দুল কাদের     শেখ হাসিনার সরকার আছে বলেই হিন্দু ধর্মের অনেকেই প্রশাসনের উচ্চ পদে : গণপূর্তমন্ত্রী     দেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের পথে এগিয়ে চলছে : তথ্যমন্ত্রী     সভাপতির পদ ছাড়া আওয়ামী লীগে যেকোনো পদে পরিবর্তন : ওবায়দুল কাদের     কমেছে শীতের সবজির দাম    

ঈদে বাড়ি ফেরার পথে রাজশাহী সিটি কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

  আগস্ট ০৬, ২০১৯     ৫৯     ১১:১৬ পূর্বাহ্ন     শিক্ষা
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : ঈদে বাড়ি ফেরার পথে রাজশাহীতে এক কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের নাম ফারদিন ইসনা আশারিয়া রাব্বি (১৮)।

আজ মঙ্গলবার ভোরে নগরীর বর্ণালীর মোড়ে ড্রেনের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফারদিন ইসনা আশারিয়া রাব্বি রাজশাহী সিটি কলেজের দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্র। রাব্বি দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানার মমিনপুর গ্রামের মোজাফ্ফর আলীর ছেলে।

রাজশাহী মহনিহর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র অতিরিক্ত উপকমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ভোর ৬টার দিকে খবর পেয়ে রাব্বির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড নাকি ছিনতাইকারীদের আঘাতে নিহত হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত নয়। রাব্বির মাথার ওপরে দেশীয় ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রাব্বি সম্ভবত ঈদে বাড়ি যাওয়ার জন্য ট্রেন ধরতে স্টেশনে যাচ্ছিল। ফজরের আজানের পর এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। তাকে কুপিয়ে ফেলে রেখে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলেই ব্যাগ, মানিব্যাগ ও মোবাইল ফোন পড়েছিল।

অতিরিক্ত উপকমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস আরও জানান, রাব্বির বাড়ি যাওয়ার কথা আগেই তার পরিবারের সদস্যদের জানিয়েছিল। বর্ণালীর মোড় এলাকার ছাত্রাবাস থেকে ভোরে বের হওয়ার সময় তার বোনের সঙ্গে কথাও বলেছিল।

এর কয়েক মিনিট পরেই এ ঘটনা ঘটে। এর পর থেকে পরিবারের সদস্যরা বারবার ফোন করলেও তাকে পায়নি।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। ঘটনাস্থলে পাওয়া তার ফোন থেকেই রাব্বির পরিবারের সঙ্গে কথা হয় পুলিশের।

পুলিশের কাছেই তারা জানতে পারেন, রাব্বি হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ আটক হয়নি। রাব্বির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর