প্রাইজবন্ডের ড্র : প্রথম পুরস্কার বিজয়ী নম্বর ০৯৬২৩০৭     করোনা রোগীর নমুনা সংগ্রহে বিশ্বের প্রথম রোবট     কক্সবাজার পৌর এলাকা রেড জোন ঘোষণা     ২১ জুন বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ     যুগ্ম-সচিব পদে ১২৩ উপ‌স‌চিবের পদোন্নতি     মোহাম্মদ নাসিমের সুস্থতা কামনায় ১৪ দল     আজিজুর রহমান বাচ্চুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক     অ্যাপে এডিস মশার প্রজননস্থলের ডাটাবেস সংরক্ষণ করবে ডিএনসিসি    

আর্জেন্টিনার ম্যাচটি বঙ্গবন্ধুর নামে করার প্রস্তাব

  অক্টোবর ০৮, ২০১৯     ১৬২     ১৯:১০     ক্রীড়া
--

উত্তরণবার্তা ক্রীড়া ডেস্ক : ক্রীড়াঙ্গনে এখন সবচেয়ে বড় খবর-দ্বিতীয়বার ঢাকা আসছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। দিনক্ষণও চূড়ান্ত। আগামী ১৮ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মেসিরা ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলবেন প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে।
যুব ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এই ম্যাচটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে করার প্রস্তাব দিয়েছে। প্রস্তাবটি দেয়া হয়েছে ম্যাচটি যাদের উদ্যোগে ঢাকায় হচ্ছে সেই এজেন্টের কাছে।
যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, ‘প্রতিষ্ঠানটি আমাদের সঙ্গে আলোচনা করে ম্যাচ আয়োজনের আনুষ্ঠানিক সম্মতি ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তা চেয়েছিল। আমরা লিখিতভাবে তাদের জানিয়ে দিয়েছি সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়ার কথা। ওই চিঠিতেই আমরা প্রস্তাব দিয়েছি ম্যাচটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে করার।’
আগামী বছর ১৭ মার্চ থেকে পরের বছর ১৭ মার্চ পর্যন্ত মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী শুরুর আগে আর্জেন্টিনা ও প্যারাগুয়ের ম্যাচটিকে প্রস্তুতি হিসেবে করার জন্য এই প্রস্তাব দিয়েছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।
তবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে আমাদের খেলাধুলার যে আয়োজনগুলো আছে, তার সাথে আর্জেন্টিনা ও প্যারাগুয়ের ম্যাচের সম্পর্ক নেই। আমাদের ওই ৩০৬ কোটি ২৪ লাখ টাকার বাজেট থেকে কোনো অর্থও ব্যয় হবে না এই ম্যাচে।’
এ ম্যাচটি বঙ্গবন্ধুর নামে হলেও আগামী বছর জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে আরেকটি বড় ম্যাচ আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ‘মাস তিনেক আগে ওই প্রতিষ্ঠান (এজেন্ট) আমাদের সাথে আলোচনা করে ব্রাজিল এবং অন্য একটি দেশ ঢাকায় এনে ম্যাচ আয়োজনের কথা বলেছিল। ব্রাজিলকে না পাওয়ায় পরে তারা আর্জেন্টিনা ও প্যারাগুয়ের ম্যাচের ব্যবস্থা করে। এই প্রতিষ্ঠানকেই আমরা আগামী বছর বড় কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়ে রেখেছি।’
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ম্যাচের জন্য নির্দিষ্ট করে কোনো দলের কথা কি বলা হয়েছে এজেন্টকে? ‘বাংলাদেশে এর আগে খেলে গেছে আর্জেন্টিনা। আবারও আসছে ম্যারাডোনার দেশটি। ব্রাজিল আসেনি এখনো। তাই আমাদের নজর ব্রাজিলের ওপর আছে। আমরা এজেন্টকে বলেছি ব্রাজিল এবং অন্য কোন দেশের ম্যাচ হলে ভালো। ব্রাজিলের অনেক সমর্থক আছে বাংলাদেশে। তাই আমাদের প্রথম পছন্দ পেলে-নেইমারদের দেশ। না হলে ইউরোপের বড় দুটি ক্লাবের ম্যাচ। যে ক্লাবে বিশ্বের বড়বড় তারকা ফুটবলাররা খেলেন’-বলেছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।
উত্তরণবার্তা/অআ



পুরনো খবর