আপনার সন্তানকে নিজ পায়ে দাঁড়াতে দিন : সজীব ওয়াজেদ জয়     ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার আজারবাইজান যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী     ভারত অভিজিতের জন্য গর্বিত: নরেন্দ্র মোদি     ভারত অভিজিতের জন্য গর্বিত: নরেন্দ্র মোদি     প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতি-সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থান নিয়েছেন: মরক্কোতে আইনমন্ত্রী     ভোলার ঘটনা নিয়ে ফেসবুকে রঙ ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা     ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ     বিনা খরচে জাপান যেতে যা লাগবে    

৭ দিনের সফরে কিশোরগঞ্জ যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি

  অক্টোবর ০৯, ২০১৯     ৩৭     ১১:১৯     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : সাত দিনের সফরে নিজ জেলা কিশোরগঞ্জে যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বুধবার থেকে ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার পর্যন্ত তিনি জেলার তাড়াইল, কিশোরগঞ্জ সদর, ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম সফর করবেন।

এক সপ্তাহের সফরে তার নাগরিক সংর্বধনা, সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান, বিভিন্ন শ্রেণিপেশার লোকজন ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শনের কথা রয়েছে।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া স্বাক্ষরিত রাষ্ট্রপতির সফরসূচি থেকে জানা গেছে, ৯ অক্টোবর বেলা ১টায় ঢাকা থেকে হেলিকাপ্টারযোগে কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। বেলা আড়াইটায়  সেখানে স্বাধীনতা-৭১ ভাস্কর্য প্রাঙ্গণে তাকে গার্ড অনার দেয়া হবে। পরে তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা ডিগ্রি কলেজ মাঠে রাষ্ট্রপতিকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হবে। রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর তাড়াইলে এটি তার প্রথম সফর। তাড়াইলের অনুষ্ঠানের পর বিকেল সাড়ে পাঁচটায় কিশোরগঞ্জ সদরে অবতরণ করবেন তিনি। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় সার্কিট হাউজে সরকারি কর্মকর্তা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন রাষ্ট্রপতি।

জেলা সদরের খড়মপট্টি এলাকায় নিজ বাসভবনে রাতযাপন শেষে ১০ অক্টোবর বেলা ১২টায় জেলা বার প্রাঙ্গণে আইনজীবী সমিতির এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেবেন। সেখানে আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে ভাষণের পর তিনি জেলা বারের নতুন ১০তলা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন। বিকেল ৩টায় শহরের শ্যামসুন্দর আখড়া পরিদর্শনের পর সন্ধ্যা ৭টায় সার্কিট হাউজে গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করবেন।

১১ অক্টোবর বেলা ১২টায় হেলিকাপ্টার যোগে রাষ্ট্রপতি তার গ্রামের বাড়ি মিঠামইন যাবেন। বেলা ৩টায় মিঠামইনের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন মাঠে সুধী সমাবেশে ভাষণ দেবেন তিনি। পরের দিন সারা বছর চলাচল উপযোগী ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়কসহ উপজেলায় চলমান বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করবেন। বিকেল ৩টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে আবদুল হামিদ ফাউন্ডেশনে তিন উপজেলার (ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম) ৮৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে সম্মাননা ও শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেবেন রাষ্ট্রপতি। এরপর ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ১৫ জন গরিব নারীকে সেলাই মেশিন প্রদান করবেন তিনি।

১৩ অক্টোবর দুপুর ২টায় মিঠামইন থেকে হেলিকাপ্টারযোগে ইটনা উপজেলায় যাবেন রাষ্ট্রপতি। সেখানে গার্ড অব অনার শেষে বিকেল ৩টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে যোগ দেবেন এবং প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেবেন। পরের দিন সকালে ইটনায় চলমান বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করে দুপুর ২টায় হেলিকাপ্টারযোগে আরেক হাওর উপজেলা অষ্টগ্রামে যাবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। সেখানে স্থানীয় খেলার মাঠে বিকাল ৩টায় আরেকটি সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেবেন তিনি। অষ্টগামের জেলা পরিষদ ডাকবাংলোয় রাতযাপন শেষে পরের মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শন শেষে বেলা আড়াইটায় হেলিকাপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে অষ্টগ্রাম ত্যাগ করবেন তিনি।

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর