দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী     ঢাকা সেনানিবাসে যান চলাচল সীমিত থাকবে বৃহস্পতিবার     ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত হজের প্রাক নিবন্ধন স্থগিত     এসএ গেমসের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা     মিসর থেকে বিমানে করে পেঁয়াজ আসছে আজ     মেসির শেষ মুহূর্তের গোলে পরাজয় এড়াল আর্জেন্টিনা     পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান হচ্ছে আজ     এই বড় বড় মাছ, নদীর খুব স্বাদের মাছ    

প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করছেন যুবলীগ নেতা পলাশ

  অক্টোবর ২৯, ২০১৯     ২৪     ২৩:৪৬     রাজনীতি
--

উত্তরণবার্তা  প্রতিবেদক : প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করছেন যুবলীগ নেতা মাহবুবর রহমান পলাশ। এর স্বীকৃতি স্বরূপ তিনি ছয়বার বাণিজ্যমেলায় পুরস্কারও পেয়েছেন। প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিশ্চিতের পাশাপাশি তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ক্লিন ইমেজ নেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন পলাশ। ১৯৮০ সালের ১ মার্চ রাজধানীর তেজগাঁওয়ের তেজতুরী বাজার এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। রাজধানী ঢাকায় শৈশব কাটলেও বেড়ে ওঠেন মুন্সিগঞ্জে। ছোটবেলা থেকেই ভালোবাসতেন আওয়ামী লীগকে। সেই ভালবাসা থেকেই ১৯৯১ সালের জাতীয় নির্বাচনের সময় নৌকা মার্কার পক্ষে ‘জয় বাংলা’, ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগানে ভোটের ময়দানে নেমে পড়েন। তখন তিনি ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্র।

পলাশের রাজনীতিতে হাতেখড়ি তার বাবা মুহাম্মদ আ. ওয়াদু গোড়াপীর কাছ থেকে, যিনি '৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাক-হানাদার বাহিনীর ক্যাম্প পোড়ানোর জন্য নির্যাতনের শিকার হন। নির্যাতনের ফলে ডান হাত ভেঙ্গে প্রায় ৭ মাস বন্দি থাকার পর ১৬ ডিসেম্বর মুক্তি পান।

রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে ১৯৯২ সালে মধ্যপাড়া ইউনিয়নের সহ-সভাপতি, ১৯৯৪ সালে তেজগাঁও ৩৯নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য, ১৯৯৫ সালে বিকেবি ডিগ্রি কলেজের অর্থ সম্পাদক, ১৯৯৭ সালে সিরাজ দিখান থানার পরিবেশ সম্পাদক, ১৯৯৯ সালে বিকেবি ডিগ্রি কলেজ ছাত্র-সংসদ নির্বাচনে ছাত্রলীগের জিএস হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তার হাত ধরেই সিরাজ দিখান উপজেলা ছাত্রলীগ আজ সুসংহত।

সেন্ট্রাল ল' কলেজে শাহদাত শাওনের আহ্বায়ক কমিটিতে ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক ছিলেন তিনি। ছাত্রলীগের রাজনীতি অনেক প্রতিকূলতার মধ্যেও সুসংগঠিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন তিনি। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের রিপন-রোটন প্যানেলে ছিলেন কার্যনির্বাহী সদস্য, ২০০৭ সালে মহানগর দক্ষিণ ছাত্র লীগের অন্যতম সভাপতি প্রার্থী ছিলেন মুহাম্মাদ মাহবুবর রহমান পলাশ। কিন্তু বয়সের কারণে বাদ পড়তে হয় তাকে। কে এম এবং ওয়ান ইলেভেনের আগে ও পরবর্তী সময়ে অনেক চ্যালেঞ্জ থাকলেও কাজ অব্যাহত রাখেন এই ছাত্র নেতা।

আওয়ামী লীগকে ভালোবেসে বিভিন্ন সময় রাজপথের আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন মাহবুবর রহমান পলাশ। ১/১১ কিংবা কে এম হাসান, এম এ আজিজ হটাও আন্দোলনের সময় রাজপথে ছিলেন তিনি। আন্দোলনের সময় পুলিশের কাঁদুনে গ্যাস ও এলোপাতাড়ি লাঠিচার্জ উপেক্ষা করে ছিলেন মিটিং-মিছিলের অগ্রভাগে।

বর্তমানে পলাশ মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহ-সভাপতি। সায়মা ওয়াজেদ পুতুল থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে ২০১২ সাল থেকে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় প্রতিবন্ধী শিশুদের বিনামূল্যে বিনোদন দিয়ে আসছেন তিনি। এছাড়াও গুলিস্তান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের যুগ্ম সম্পাদক, মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার সাধারণ সম্পাদক, বিএসএমইউ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের তিনবার অভিভাবক প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের নতুন নেতৃত্বে মাহবুবর রহমান পলাশকে দেখতে চান মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা।

উত্তরণবার্তা/এআর

 



পুরনো খবর