খেলার মাঠে মুখোমুখি হবেন মমতা-হাসিনা     ইডেনে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী     বঙ্গবন্ধুর নামে হবে আন্তঃকলেজ ফুটবল টুর্নামেন্ট: ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী     দেশের মানুষ ভালো আছে, এটি অনেকের সহ্য হচ্ছে না : প্রধানমন্ত্রী     রোহিঙ্গা গণহত্যা : আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের নেতৃত্বে সু চি     রাজধানী মার্কেটের আগুন তদন্তে কমিটি     কম্বোডিয়ায় বঙ্গবন্ধুর নামে প্রস্তাবিত সড়ক পরিদর্শনে স্পিকার     শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা    

৬জি নিয়ে কাজ শুরু করেছে চীন

  নভেম্বর ০৯, ২০১৯     ৬৭     ১১:৩৮     শিক্ষা
--

উত্তরণবার্তা তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : ষষ্ঠ প্রজন্মের টেলিকম প্রযুক্তি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে গবেষণা শুরু করেছে চীন। বৃহস্পতিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এর মাধ্যমে সর্বশেষে ওয়্যারলেস উদ্ভাবনে একধাপ এগিয়ে গেল চীন।

চীনের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একটি জাতীয় ৬জি প্রযুক্তি গবেষণা ও উন্নয়ন গ্রুপ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে চীন সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রতিনিধিরা এ সপ্তাহে এক নীতিনির্ধারণী বৈঠকে মিলিত হন।

অতি দ্রুত মোবাইল পরিষেবা সম্পর্কিত প্রযুক্তিগুলো সাম্প্রতিক সময়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যকার মূল দ্বন্দ্বের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বিশ্বজুড়ে অনেক দেশই ৫জি পরবর্তী প্রজন্মের ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক রোল আউট করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, যা ৪জি’র তুলনায় কমপক্ষে ২০ গুণ দ্রুত ডাটা সরবরাহ করতে পারে এবং অগমেন্টেড রিয়েলিটি, চালকবিহীন গাড়ির মতো নতুন প্রযুক্তি সমর্থন করে।

চীনের এই অগ্রগতির পিছনে অবশ্য হুয়াওয়ে টেকনোলজিসেরও অনেক ভূমিকা রয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম এই টেলিকম সরঞ্জাম নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানটি এই নেটওয়ার্কগুলো তৈরিতে ব্যাপকভাবে জড়িত।

হুয়াওয়ের সরঞ্জাম চীন গুপ্তচরবৃত্তির জন্য ব্যবহার করতে পারে এই আশঙ্কায় মার্কিন সরকার গত মে মাসে হুয়াওয়েকে দেশটিতে কালো তালিকাভুক্ত করে। মার্কিন সরকার তাদের মিত্রদেরও নিজেদের ৫জি নেটওয়ার্কে হুয়াওয়ের পণ্য নিষিদ্ধ করার জন্য আহ্বান জানায় এবং এ লক্ষ্যে একটি প্রচারণাও চালায়। হুয়াওয়ে বারবার এ দাবি অস্বীকার করেছে।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেব্রুয়ারিতে টুইট করেছেন যে তিনি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব যুক্তরাষ্ট্রে ৬জি প্রযুক্তি চান। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংস্থাগুলোকে তাদের প্রচেষ্টা ত্বরান্বিত করতে আদেশও দিয়েছিলেন।

দেশের শীর্ষ তিনটি টেলিকম কোম্পানি দেশজুড়ে ৫জি মোবাইল ফোন পরিষেবা চালু করার কয়েক দিন পরেই বেইজিংয় ৬জিতে গবেষণা শুরু করার এই পদক্ষেপ নিল।

চীন মূলত বলেছিল যে তারা আগামী বছরের গোড়ার দিকে অতি-দ্রুত মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করবে কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে উত্তেজনার প্রেক্ষিতেই দেশটি তাদের পরিকল্পনা ত্বরান্বিত করেছে।

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর