করোনা সম্পর্কে যেসব তথ্য এখনো অজানা     সর্বশেষ করোনা পরিস্থিতি, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো আক্রান্ত নেই     পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে : বরিস জনসন     নিউজিল্যান্ডে করোনায় প্রথম মৃত্যু     ঢাকার পথে মেডিক্যাল সরঞ্জামবাহী চীনা বিমান     বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৩০৮৮০, আক্রান্ত ৬৬৩৭৪০     টিভিতে শুরু হলো ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির ক্লাস     সরকারের অবহেলায় সংক্রমণ শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র    

তারা বিভেদের রাজনীতি করতে চায় : ওবায়দুল কাদের

  মার্চ ২৬, ২০২০     ২১     ২২:৪২     রাজনীতি
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : সংকট ও সম্ভাবনার বিশ্লেষণ না করে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে যারা সরকারের সমালোচনা করছেন তাদের একহাত নিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বাঙালি জাতির নেতা হিসেবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পূর্ব প্রস্তুতি ও বর্তমান প্রস্তুতিসহ ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা জাতির সামনে তুলে ধরেছেন।  কিন্তু আমরা দেখতে পাচ্ছি, কতিপয় মহল বা কিছু ব্যক্তি সংকট ও সম্ভাবনার কথা বিশ্লেষণ না করে বরাবরের মতো ছিদ্রান্বেষণী হয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনা করেছেন।

‘অনাকাঙ্ক্ষিত সংকট নিরসনে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে যেখানে জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন সেখানেও তারা বিভেদের রাজনীতি করতে চায়।’

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ)  ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে প্রদত্ত দিক-নির্দেশনাগুলো ছিল নির্মোহ, নির্মেদ ও আশা জাগানিয়া। তিনি করোনা সংকট মোকাবিলায় বিদেশফেরত যাত্রীদের স্ক্রিনিং করা থেকে শুরু করে কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থা, হাসপাতাল প্রস্তুত ও চিকিৎসা সামগ্রী সরবরাহে সরকার কর্তৃক সম্পন্ন সব কার্যক্রমের কথা তিনি তুলে ধরেছেন।

তিনি বলেন, ‘অনাকাঙ্ক্ষিত সংকটের মুখে নিশ্চিত সমাধানে যেখানে সারা বিশ্ব হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে সরকার সীমাবদ্ধতাকে জয় করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।  দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে এই সংকট মোকাবিলায় তার সরকারের গৃহীত পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন।  প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে মিথ্যার ফানুস উড়াননি। তিনি অবাস্তব ও কল্পনাপ্রসূত প্রতিশ্রুতি দেননি। তিনি বাস্তবতার নিরিখে স্বাভাবিক জীবনের দরজায় কড়া নাড়া অনাকাঙ্ক্ষিত করোনাভাইরাসে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলার রূপরেখা ও কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেছেন।

প্রধানমন্ত্রী জনগণের একজন হয়েই গণ-দায়িত্ববোধ সৃষ্টির মাধ্যমে এই সংকটের মোকাবিলা করতে চেয়েছেন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে কর্মহীন খেটে খাওয়া মানুষের জন্য সহায়তার কথা সুনির্দিষ্টভাবে বলেছেন। গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য বিনামূল্যে ঘর, ৬ মাসের খাদ্য, নগদ অর্থ প্রদান এবং বিনামূল্যে ভিজিডি, ভিজিএফ ও ১০ টাকা
কেজি দরে চাল সরবরাহের কর্মসূচি অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। শিল্প প্রতিষ্ঠানের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার একটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন।’

দেশের জনগণের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় করোনা ভাইরাসের এই সংকট মোকাবেলায়
সরকার সক্ষম হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ওবায়দুল কাদের।

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর