প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে টেলিভিশনে হাসিনা : এ ডটারস টেল     সৌদি প্রবাসীদের ফেরাতে বিশেষ ফ্লাইট আজ     ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটে চালু হচ্ছে বিমানের ফ্লাইট     প্রধানমন্ত্রী আজ জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন     দ্বিতীয় সংক্রমণ রোধে সরকারি উদ্যোগ: দিনে ১৩ হাজার নমুনা পরীক্ষা     উপনির্বাচন, পাবনা-৪ আসনে ভোটগ্রহণ চলছে     ইউক্রেনে সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ২২     মানুষের সমর্থন আছে বলেই ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে পারছি : প্রধানমন্ত্রী    

বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে লক্ষ্য ছিল নব্য পাকিস্তান সৃষ্টি : আমু

  আগস্ট ১৫, ২০২০     ৭৬     ০০:০৩     রাজনীতি
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু এমপি বলেছেন, বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে নস্যাৎ করে নব্য পাকিস্তান সৃষ্টির লক্ষ্যে দেশি বিদেশি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ভিড় এড়াতে দুপুরে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহচর আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ।

পরে আমু বলেন, ‘পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করার পেছনে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র ছিল। এটি ছিল একটি পরিকল্পিত রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড। এ হত্যাকাণ্ডের পর বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে যে অপশক্তি হত্যা করতে কুণ্ঠাবোধ করেনি, তারা জানত বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। এ কারণে ষড়যন্ত্রকারীরা স্বাধীন বাংলাদেশকে শেষ করে দেয়ার উদ্দেশ্যেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল। বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তের মধ্য দিয়েই সেদিন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব হত্যা করা এবং একটি নব্য পাকিস্তান সৃষ্টি করার জন্য এ হত্যাকাণ্ড।’

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে এই দেশ স্বাধীন হতো না। ইতিহাসের সেই মহামানব বিশ্বের নিপীড়িত মানুষের নেতা বঙ্গবন্ধুকে ১৫ আগস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধু যখন বিধ্বস্ত বাংলাদেশকে সব কিছুতে স্বাভাবিক করেছিলেন। সেই সময় বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্ব নেতা, যেখানে গেছেন সেখানেই বঙ্গবন্ধুকে সমাদৃত করা হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর দুইটা স্বপ্ন ছিল, একটা স্বাধীনতা আরেকটা সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তোলা। একটা তিনি করে গেছেন। আরেকটা তিনি করে যেতে পারেন নাই। সেই কাজটি সমাপ্ত করার পথে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, যার হাতে ১৯৮১ সালে আমরা আওয়ামী লীগের পতাকা তুলে দিয়েছিলাম। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজের সমাপ্ত পথে এগিয়ে চলেছেন।’

উত্তরণবার্তা/এআর

 



মণিপুরী ইলিশ! পুকুরেই চাষ, দারুণ স্বাদ

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০     ৪৩

টানা ৩ দিন ভারী বৃষ্টি হতে পারে

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০     ৩৪

হৃদরোগ ও করোনাঝুঁকি

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০     ২২

পপির চলচ্চিত্রে নাম লেখালেন তানিন

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০     ২১

পুরনো খবর