প্রতিমা বির্সজনে শেষ হলো দুর্গোৎসব     ভারতে ট্রেন চাপায় ৫০ জন নিহত     প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরছেন আজ     মণ্ডপে মণ্ডপে বিদায়ের সুর, আজ শুভ বিজয়া দশমী     চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহগামী ট্রেন লাইনচ্যুত     মহানবীর (সা.) রওজা জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী     সৌদি বাদশাহর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ     শারদীয় দূর্গা পূজার আজ মহা নবমী    

কোন পশুর চামড়ায় কী পণ্য

  সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৮     ৭৫৬     ২:১৯ অপরাহ্ণ     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা অর্থনীতি ডেস্ক : জীবনকে সাজাতে মানুষ কত কিছুই না করে। রুচিশীল মানুষের কাছে তার নিত্যদিনের ব্যবহার্য জিনিসপত্র নান্দনিক, ব্যক্তিত্বসম্পন্ন ও মানানসই হওয়া চাই। আমাদের জীবনের অন্যতম অনুষঙ্গ হয়ে রয়েছে চামড়াজাত বিভিন্ন পণ্য।

জুতা-স্যান্ডেল থেকে শুরু করে মানিব্যাগ। আবার লেডিস ব্যাগ থেকে জ্যাকেট অনেক কিছুই তৈরি হচ্ছে বিভিন্ন পশুর চামড়া থেকে। কেনাকাটা করতে গেলে চামড়াজাত পণ্য ‘অরিজিনাল চামড়ার’ কিনা তা খোঁজ করি।

কিন্তু আমরা জানিনা বা চিন্তাও করি না কোন পশুর চামড়া দিয়ে কী পণ্য তৈরি হয়। সব পশুর চামড়া দিয়ে যেমন সব পণ্য তৈরি হয় না, তেমনি পশুর চামড়ার সব অংশেরও সমান ব্যবহার হয় না। এক্ষেত্রেও রয়েছে রকমফের।

চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এসব তথ্য। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শামীম আহমেদ বলেন, আমরা অনেক সময় চিন্তা করি সব পশুর চামড়া দিয়ে হয়তো সব ধরনেরই পণ্য তৈরি করা যায়; কিন্তু আসলে সেটি ঠিক নয়।

কেননা একেক পশুর চামড়া দিয়ে একেক ধরনের পণ্য তৈরি হয়। তবে চামড়ার ওপর নির্ভর করে পণ্যের গুণগত মান ও দাম।

গরু : গরুর চামড়া দিয়েই মূলত তৈরি হয় আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার্য বেশিরভাগ চামড়াজাত পণ্য। যেমন গরুর চামড়া দিয়ে তৈরি হয় অফিসিয়াল ব্যাগ, লেডিস ব্যাগ, হ্যান্ড গ্লোবস, জ্যাকেট, বেল্ট, পার্স এবং উন্নতমানের মানিব্যাগ।

মহিষ : মহিষের চামড়া দিয়ে তৈরি হয় প্রধানত বেল্ট। তাছাড়া চাপ কলের গ্যাসকেট, শিল্পের বিভিন্ন উপকরণ, আর্মিদের বুট, কারাখানার সেফটি বুট এবং জুতার আউট সোল তৈরি করা হয়।

ছাগল : ছাগলের চামড়া দিয়ে তৈরি হয় জুতা, মহিলাদের স্যান্ডেল, মহিলাদের হ্যান্ড ব্যাগ, পার্স এবং নিম্নমানের মানিব্যাগ।

ভেড়া : ভেড়ার চামড়া দিয়ে মূলত জ্যাকেট তৈরি হয়। এছাড়া ছোট ছোট জুতা, যেগুলো স্থানীয় বাজারের জন্য তৈরি করা হয়।

সাপ : গুই সাপের চামড়া দিয়ে পণ্য তৈরি নিষিদ্ধ রয়েছে বাংলাদেশে। তবে বিদেশে শুধু গুই সাপ নয়, বরং যে কোনো সাপের চামড়া দিয়েই তৈরি হয় উন্নতমানের মানিব্যাগ।

রফতানি পণ্যে ব্যবহৃত চামড়া : চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাংলাদেশ থেকে চামড়াজাত যেসব পণ্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রফতানি করা হয় সেগুলো সাধারণত সবচেয়ে মানসম্মত চামড়া দিয়ে তৈরি হয়। রফতানি পণ্যগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, জুতা (সু), অফিসিয়াল ব্যাগ, জ্যাকেট, মানিব্যাগ, মহিলাদের পার্স, বেল্ট এবং মহিলাদের হাত ব্যাগ।

কোন অংশের চামড়া সবচেয়ে দামি : কোন অংশের চামড়া সবচেয়ে দামি এমন প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ জানান, গরু বা যে কোনো পশুর ক্ষেত্রে চামড়া ব্যবসায়ীদের ভাষায় টিআর সাইড অর্থাৎ লেজের ওপরের অংশের চামড়া সবচেয়ে দামি।

এ চামড়া দিয়ে সাধারণত দামি জুতার ওপরের অংশ তৈরি হয়ে থাকে। এরপরই পশুর মাঝের অংশের চামড়া দামি হয়ে থাকে। এ অংশ দিয়ে মূল্যবান পণ্য তৈরি হয়। তবে গর্দানের অংশের দাম সবচেয়ে কম থাকে। এ অংশ দিয়ে সাধারণত কম দামি বিভিন্ন পণ্য তৈরি হয়।

পুরান ঢাকার একটি জুতার কারখানায় দীর্ঘদিন ধরে কারিগর হিসেবে কাজ করেন মো. সালাউদ্দিন মিয়া। তিনি জানান, দামি জুতা তৈরিতে সাধারণত গরুর পেছন এবং পিঠের অংশের চামড়া ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তাছাড়া স্থানীয় বাজারের জন্য কম দামি জুতা তৈরিতে মহিষের চামড়াও ব্যবহার করা হয়। এছাড়া গরুর মাথার দিকের চামড়া স্থানীয় কারখানাগুলো বিভিন্ন ছোট ছোট পণ্য তৈরিতে ব্যবহার হয়ে থাকে।

উত্তরণবার্তা/এআর
 
 



নতুন আর্জেন্টিনা পুরনো ব্রাজিল

  সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৮     ৭৮৫০

যমজ লাল্টু-পল্টুর দাম ২০ লাখ

  আগস্ট ১২, ২০১৮     ৪৫৭৭

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের সূচি

  জুন ০৬, ২০১৮     ৪২৮৯

পুরনো খবর