আগামী দিনে ভারত ও বাংলাদেশের আইসিটি সেক্টর একযোগে কাজ করবে : রীভা গাঙ্গুলি     বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী : ওয়েবসাইটের কনটেন্ট নির্ধারণ কমিটি’র প্রথম সভা অনুষ্ঠিত     স্বাস্থ্য বীমা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী     আগরতলা মামলায় অভিযুক্তদের রাষ্ট্রীয় সম্মান দেয়া প্রয়োজন : ডেপুটি স্পিকার     তথ্য অধিকার আইনে ৯৫ হাজার ২৩৩টি তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী     জীবন যাত্রার মানোন্নয়ন এবং দারিদ্র্য বিমোচনে বাংলাদেশ বিশ্বে অনন্য উদাহরণ : শেখ হাসিনা     সিআইসিএ সম্মেলন শেষে আজ রাতে দেশে ফিরছেন রাষ্ট্রপতি     কিশোরগঞ্জে চয়ন হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি    

পাবনায় নৌকাডুবি, নিখোঁজদের সন্ধানে অভিযান চলছে

  সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮     ৭৯     ৩:৪১ অপরাহ্ণ     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক: পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুরে পদ্মা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চলছে। তবে নৌকাডুবির ১৯ ঘণ্টা পর্যন্ত নিখোঁজ কারো মরদেহ উদ্ধার করা যায়নি।

পাবনা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক এ কে এম সাইফুল ইসলাম জানান, পাবনা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ও রাজশাহী থেকে আসা একটি ডুবুরি দলের সদস্যরা শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। তবে এখন পর্যন্ত কারো সন্ধান মেলেনি।

অপরদিকে, নিখোঁজ তিনজনের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। নদীর তীরে বসে আছেন নিখোঁজদের স্বজনরা। উদ্ধার অভিযান ও নিখোঁজদের খবর জানতে ভিড় করছেন এলাকাবাসীও।

নৌকাডুবির খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনাস্থলে ছুটে যান পাবনার জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওবাইদুল হক। তারা নিখোঁজদের বিষয়ে ও উদ্ধার অভিযানের খোঁজখবর নেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, ‘আমরা নিখোঁজদের উদ্ধারের সবার্ত্মক চেষ্টা করছি। ফায়ার সার্ভিস, মেডিক্যাল টিম এখানে উপস্থিত রয়েছে। রাজশাহী থেকে ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজে অংশগ্রহণ করেছে। পাবনা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিখোঁজদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হবে।’

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের দীঘি গোহাইলবাড়ী এলাকায় পদ্মা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এতে শিশুসহ তিনজন নিখোঁজ হয়। নিখোঁজরা হলেন- সদর উপজেলার দীঘি গোহাইলবাড়ী গ্রামের ইমান সরদারের ছেলে আবুল হাসেম (৩০), ডিটুল সরদারের ছেলে বিপ্লব (৭) ও কাশেম সরদারের ছেলে নাইম (৬)।

চরতারাপুর ইউপি চেয়ারম্যান টুটুল খাঁ জানান, একটি মৃত্যুবাষির্কীতে যোগদানের উদ্দেশে ১১ জন যাত্রী দীঘি গোইলবাড়ী থেকে নৌকায় করে অপর পাড়ে ভাদুরডাঙ্গি ঘাটের দিকে যাওয়ার উদ্দেশে পদ্মা নদী পার হচ্ছিল। যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রবল স্রোতের টানে নৌকাটি উল্টে যায়। এ সময় আটজন সাঁতরে তীরে উঠলেও ওই তিনজন নিখোঁজ হয়।

উত্তরণবার্তা/এআর


 



শীর্ষে ‘স্লো মোশন’

  জুন ১৫, ২০১৯     ৩১৭

গ্রিল স্বাদে মুখরোচক চিকেন

  জুন ১৭, ২০১৯     ২১৯

পুরনো খবর