চাকরির পেছনে ছোটার মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী     নানা আয়োজনে ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী পালিত     পরমাণুবিজ্ঞানী ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়ার জন্মদিন আজ     চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন ২৯ মার্চ, বগুড়া ও যশোরে উপনির্বাচন একইদিন     ডেঙ্গুবাহী মশা নিধনে সমন্বিতভাবে কাজ হচ্ছে : তাজুল ইসলাম     কর ফাঁকিবাজদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে : দুদক চেয়ারম্যান     রাজধানীতে ডিস ব্যবসায়ি হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন     সংসদে কোম্পানি (সংশোধন) বিল ২০২০ এর রিপোর্ট উপস্থাপন    

জাপা সরকারে নাকি বিরোধী দলে, আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হবে

  জানুয়ারি ০২, ২০১৯     ২৮১     ৯:৪২ পূর্বাহ্ন     রাজনীতি
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফল নিয়ে অসন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন বিজয়ী মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

তিনি বলেছেন, একাদশ নির্বাচনের ফলাফলে আমরা সন্তুষ্ট নই। জাতীয় পার্টির আরো বেশি আসনে জয়ী হওয়ার কথা ছিল। তবে সার্বিক বিবেচনায় এবারের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বনানীর কার্যালয়ে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এস এম ফয়সল চিশতীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, আমাদের ৩০টি আসন দেয়া হয়। সেখান থেকে ২৪টি করা হয়। আমরা ২২টিতে ফল পেয়েছি। নির্বাচনে আমাদের ওপর অনেক নির্যাতন করা হয়েছে। অনেক জায়গায় এজেন্টও থাকতে দেয়া হয়নি। তবুও বলব, সার্বিক বিবেচনায় নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি এখন দ্বিতীয় বৃহত্তম ও শক্তিশালী দল। আগামী দিনে জাতীয় পার্টিকে একটি গণতন্ত্রিক দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে কাজ করব আমরা। দলকে আরো সংগঠিত করাই হবে এখন পার্টির জন্য প্রধান কাজ। যাতে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় যেতে পারে, সেজন্যও প্রস্তুতি নিতে হবে এখন থেকেই।

‘রাজনীতিতে যে আমাদের ভুল-ত্রুটি হয়নি তা বলার সুযোগ নেই। যেন কথায় কথায় কাউকে বহিষ্কার করা না হয়। আমি নিজেও চারবার বহিষ্কৃত হয়েছি। এই ধরনের ঘটনা দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। চেয়ারম্যানকে ভুল বোঝানো নেতাদের বিচার হওয়া উচিত। তাহলে জাপা দল হিসেবে টিকে থাকবে,’ বলেন মসিউর রহমান রাঙ্গা।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব বলেন, একাদশ সংসদে অনেকেই বঞ্চিত হয়েছেন। এখন আমাদের সংরক্ষিত কোটায় বঞ্চিত মহিলা নেত্রীদের জন্য কিছু করা যায় কি না সে চেষ্টা করব। পার্টির চেয়ারম্যানের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সরকারে নাকি বিরোধী দলে, আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হবে:
মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, সংবিধান অনুযায়ী, আমরা বিরোধী দল হতে পারব, সমস্যা নাই। তবে যা কিছুই করি, দলের প্রেসিডিয়াম ও মহাজোটের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।

তিনি বলেন, বুধবার ১১টায় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং প্রেসিডিয়াম সদস্যদের সাথে যৌথসভা হবে। সেখানে প্রথমে সিদ্ধান্ত হবে- জাতীয় পার্টি সরকারে নাকি বিরোধী দলে থাকবে। এরপর মহাজোটের সাথেও আলোচনা হবে এ বিষয়ে।

আলোচনা সভায় প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা মান্নান, আলমগীর সিকদার লোটন, বাহাউদ্দিন বাবুল, নুরুল ইসলাম নুরু, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, জহিরুল ইসলাম রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আহসান শাহজাদা, স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল হোসেন, প্রচার সম্পাদক খোরশেদ আরা খুশু, ডা. সেলিমা খান, রমজান আলী ভূঁইয়া, শেখ শান্ত প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পার্টির দপ্তর সম্পাদক সুলতান আহমেদের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় এস এম ফয়সল চিশতি বলেন, নির্বাচন নিয়ে অনেক কিছু হয়েছে। সবাই জানে, আমরা চাইলেও অনেক কথা বলতে পারি না। তবুও মহসচিবের কাছে দাবি, সবাইকে নিয়ে বসেন, তাদের মনের কথা শোনেন।

ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়নের দাবি জানিয়ে পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান আলমগীর সিকদার লোটন বলেন, জাপায় কখনো ত্যাগী নেতার মুল্যায়ন হয় না। এখানে কিছু দিলেই পাগলও প্রেসিডিয়ামের দায়িত্ব পেয়ে যান। হাইব্রিডরাই এমপি-মন্ত্রী হন, আবার অসময়ে চলেও যান। কিন্তু সুখে-দুঃখে যারা পার্টিকে আগলে রেখেছেন, তারা সব সময় বঞ্চিত হন।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য নূরে হাসনা লিলি চৌধুরী, উপদেষ্টা ড. মো. নুরুল আজহার, ভাইস চেয়ারম্যান এম এ তালহা, জিয়াউল হক মৃধা, যুগ্ম মহাসচিব মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য হেলাল উদ্দিন, এ কে এম আশরাফুজ্জামান খান, সুলতান মাহমুদ, এম এ রাজ্জাক খান, রেজাউল করিম, মাওলানা ক্বারী আসিফ, শারমিন পারভীন লিজা, পারভীন তারেক, শাহিদা রহমান রিংকু, কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সাত্তার, মিজানুর রহমান দুলাল, মামুনুর রহমান, শেখ দ্বীন ইসলাম, হাসান মঞ্জুর, মোস্তফা আল মাহমুদ, মিনি খান, জাহানারা মুকুল, আব্দুল বাতেন ও তাসলিমা আক্তার রুনা।

উত্তরণবার্তা/এআর
 

 



বাধাহীন মাহির ‘মন দেব মন নেব’

  ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

পুরনো খবর