চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৯ হাজার ৭৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী     বিএসএমএমইউতে চালু হচ্ছে ৫ ডিজিটের হেলপ লাইন     আওয়ামী লীগ সম্পাদকমন্ডলীর সভা আগামীকাল     নওগাঁয় গত অর্থ বছরে ৪৬০ কোটি ৪৮ লক্ষ ৫১ হাজার টাকা ঋণ বিতরণ     নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বাণিজ্য ব্যবধান হ্রাসের আহ্বান জানালেন মোমেন     প্রশিক্ষণ সফর শেষে নৌবাহিনীর যুদ্ধ জাহাজ সমুদ্র অভিযানের ভারতের বিশাখাপত্তম বন্দর ত্যাগ     একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন     ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক    

ক্রীড়াঙ্গনে নির্বাচিত কমিটি গড়া হবে : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর

  জানুয়ারী ১৭, ২০১৯     ১৯৭     ৪:২৫ অপরাহ্ণ     ক্রীড়া
--

উত্তরণবার্তা ক্রীড়া ডেস্ক :গত সপ্তাহে দায়িত্ব নেওয়ার পর বুধবার ৫৩টি ক্রীড়া ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে সভা করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (এনএসসি) ভবনে প্রায় ৩ ঘণ্টা ধরে চলা সভায় অ্যাডহক কমিটির বদলে নির্বাচিত কমিটি গড়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।
 
নতুন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, ‘৫৩টি ফেডারেশন-অ্যাসোসিয়েশনের মধ্যে ২১টি চলছে অ্যাডহক কমিটি দিয়ে। এটা দেখে খুব খারাপ লাগছে আমার। নির্বাচিত কমিটি না থাকলে ক্রীড়াঙ্গন এগোবে না।’ ভালোবাসা নিয়ে খেলাধুলার পাশে থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘ক্রীড়াঙ্গন এমন জায়গা যেখানে ভালোবাসা নিয়ে থাকতে হবে। যাদের মনে ক্রীড়াঙ্গনের জন্য ভালোবাসা নেই, তাদের এখানে না থাকাই উচিত। আপনারা পরিকল্পনা দিন আমাদের। ভবিষ্যতে আমরা অবশ্যই সেই সব পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করবো।’
 
দীর্ঘদিন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন জাহিদ আহসান। সেই অভিজ্ঞতার আলোকে ক্রীড়া কর্মকর্তাদের প্রতি তার হুঁশিয়ারি, ‘এই দায়িত্ব নেওয়ার আগেই ক্রীড়াঙ্গনের অনেক কিছু সম্পর্কে আমি জানি। কে কেমন সবই আমার জানা। আমাকে দেখার জন্য প্রধানমন্ত্রী আছেন, আর আপনাদের কাজ দেখার জন্য আমি আছি। আপনারা মন দিয়ে কাজ করুন। কাজের ওপরেই নির্ভর করবে ভবিষ্যতে কে থাকবে আর কে থাকবে না।’
 
সভায় বাংলাদেশ অ্যামেচার রেসলিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তাবিবুর রহমান বলেছেন, ‘বলা হয়েছিল এনএসসি টাওয়ারে সব ফেডারেশন জায়গা পাবে। কিন্তু দুঃখের কথা, আমরা এখানে কোনও জায়গা পাইনি। আশা করি, আপনি আমাদের এই টাওয়ারে জায়গা দেবেন।’ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শাহাবউদ্দিন শামীম বলেছেন, ‘দাবা জনপ্রিয় খেলা। অথচ ৩০০ জন দাবাড়ু নিয়ে একটা বড় টুর্নামেন্ট করার মতো জায়গা আমাদের নেই। আমরা আশা করবো নতুন প্রতিমন্ত্রী এই সমস্যা সমাধানে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন।’
 
ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহারের প্রত্যাশা, ‘জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনিয়মিতভাবে হয়। অথচ আমাদের সমস্যার কথা বলার প্ল্যাটফর্ম হলো এজিএম। তাই নিয়মিত এজিএম আয়োজনের দাবি জানাচ্ছি।’ ক্রীড়াঙ্গনে বাজেট বৃদ্ধির দাবি জানিয়ে হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সভাপতি নুরুল ফজল বুলবুল বলেছেন, ‘ক্রীড়াঙ্গনের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট চাই। ৫ লাখ কোটি টাকার জাতীয় বাজেটে ক্রীড়াঙ্গনের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকা থাকতেই পারে। এটা এমন কোনও ব্যাপার নয়।’
 
ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশীদ বলেছেন, ‘প্রায় দুই যুগ পর এই প্রথম কোনও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী সভা করলেন ফেডারেশন কর্মকর্তাদের সঙ্গে। এত কম টাকায় ক্রীড়াঙ্গন চলার নজির বোধহয় পৃথিবীতে আর নেই। ক্রীড়াঙ্গন থেকে যে দুই-একটা পদক আসে সেজন্য ক্রীড়া সংগঠকদের পদক দেওয়া উচিত!’
উত্তরণবার্তা/আসো
 
 



রক্তাল্পতা দূর করবে যে সবজি

  সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯

রাজশাহীতে ৬ মাসের শিশুর পেটে শিশু!

  সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯     ২২০

একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন

  সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯     ২০২

পুরনো খবর